শিরোনাম:
●   লালমোহনে আমেজ-শঙ্কার ইউপি নির্বাচন।।লালমোহন বিডিনিউজ ●   লালমোহনে ইউপি নির্বাচনের প্রার্থীদের সাথে পুলিশের মতবিনিময় ●   লালমোহন পৌর মেয়রের হোয়াটসঅ্যাপ হ্যাক করে টাকা দাবি।।লালমোহন বিডিনিউজ ●   লালমোহনে সরকারি গাছ কর্তনের অভিযোগ || লালমোহন বিডিনিউজ ●   দ্বাদশ জাতীয় সংসদের পানি সম্পদ মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত।।লালমোহন বিডিনিউজ ●   লালমোহন পশ্চিম চর উমেদ ইউপি নির্বাচনে গণসংযোগে ব্যস্ত চেয়ারম্যান প্রার্থী।।লালমোহন বিডিনিউজ ●   লালমোহনে পাঁচ অবৈধ ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও হসপিটাল সিলগালা।।লালমোহন বিডিনিউজ ●   লালমোহনে এক কেজি গাঁজা সহ আটক ১।।লালমোহন বিডিনিউজ ●   স্ট্যান্ড নেই, সড়ক ইজারা দিচ্ছে লালমোহন পৌরসভা!।। লালমোহন বিডিনিউজ ●   এমবিবিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ায় লালমোহনে শিক্ষার্থীকে সংবর্ধনা।।লালমোহন বিডিনিউজ
ঢাকা, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০

Lalmohan BD News
রবিবার, ২২ অক্টোবর ২০২৩
প্রথম পাতা » অপরাধ | জেলার খবর | বরিশাল | বিভাগের খবর | লালমোহন | শিরোনাম | সর্বশেষ » লালমোহনে মামলা করায় বাদির ভাইয়ের ঘরে ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ
প্রথম পাতা » অপরাধ | জেলার খবর | বরিশাল | বিভাগের খবর | লালমোহন | শিরোনাম | সর্বশেষ » লালমোহনে মামলা করায় বাদির ভাইয়ের ঘরে ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ
২৮০ বার পঠিত
রবিবার, ২২ অক্টোবর ২০২৩
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

লালমোহনে মামলা করায় বাদির ভাইয়ের ঘরে ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ

---লালমোহন ভোলা প্রতিনিধি : ভোলার লালমোহনে পিতাকে মারধরের ঘটনায় মামলা করায় বাদির ভাইয়ের বসতঘরে ভাঙচুর, লুটপাট ও নারীকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
রবিবার দুপুরে উপজেলার বদরপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড বদরপুর গ্রামের আবদুল হাওলাদার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে গত ১৩ অক্টোবর সকালে ওই বাড়ির বৃদ্ধ সেরাজল কে মারধর করেন ওই বাড়ির ছমেদ হাওলাদারের ছেলে আবু হাওলাদার ও তার লোকজন। গুরুতর আহত সেরাজল হক বর্তমানে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
এদিকে বাবার উপর হামলার ঘটনায় ১৭ অক্টোবর ভোলার আদালতে আবু হাওলাদার ও তার লোকজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন বৃদ্ধ সেরাজল হকের ছেলে ফারুক। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রবিবার দুপুরে ফারুকের ভাই কবিরের বসতঘরে ভাঙচুর ও লুটপাট চালায় আবু হাওলাদার ও তার লোকজন।
কবিরের স্ত্রী শাহানাজ বেগম বলেন, দুপুরে কোনও পুরুষ লোক ঘরে ছিলেন না। এ সুযোগে আবু হাওলাদার, জালাল আহমেদ, রুবেল, মারুফ, হিরন, লোকমান, জামসেদ, শাহানাজ, জাহানারা বেগমসহ আরও কয়েকজন মিলে আমাকে মারধর করে আমার বসতঘরে ভাঙচুর ও লুটপাট চালায়। তারা ঘরে থাকা ৫ভরি স্বর্ণ, নগদ পাঁচ লক্ষ টাকা ও সুপারির আটটি বস্তা নিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কবিরের ঘরে ভাঙচুর ও লুটপাটের বিষয়টি অস্বীকার করে আবু হাওলাদার বলেন, তাদের নামে মামলা করায় আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ তুলেছে।
এদিকে হামলায় আহত শাহানাজ বেগম বর্তমানে লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় আইনের দ্বারস্থ হবেন বলেও জানান তারা।



আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)