শিরোনাম:
●   ভোলায় সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের লক্ষে মাঠে নেমেছে কোস্টগার্ড।।লালমোহন বিডিনিউজ ●   মনপুরায় উপজেলা নির্বাচনে তিন পদে ৮ প্রার্থীকে প্রতীক বরাদ্দ।।লালমোহন বিডিনিউজ ●   ভোলার তিন উপজেলায় ভোটের সরঞ্জাম যাচ্ছে কেন্দ্রগুলোতে।।লালমোহন বিডিনিউজ ●   লালমোহনে দুদকের উদ্যোগে ২য় পর্বের বিতর্ক প্রতিযোগিতা সম্পন্ন।।লালমোহন বিডিনিউজ ●   লালমোহনে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে হামলা, আহত-২ ●   লালমোহনে দোয়াত কলম সমর্থকদের ওপর শালিক সমর্থকদের হামলার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন ●   শেখ হাসিনা রাষ্ট্র ক্ষমতায় বলেই দেশের মানুষ স্বাধীনভাবে নিজ নিজ ধর্ম পালন করছে -এমপি শাওন।। লালমোহন বিডিনিউজ ●   লালমোহনে বাস-অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত-৫।।লালমোহন বিডিনিউজ ●   লালমোহন ধলীগৌরনগর ইউপি চেয়ারম্যান পদে প্রতীক পেয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় ●   লালমোহনে ভূমিষ্টের সময় নবজাতকের মৃত্যু, হত্যার অভিযোগ দাদার।।লালমোহন বিডিনিউজ
ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

Lalmohan BD News
রবিবার, ৫ মে ২০২৪
প্রথম পাতা » জেলার খবর | লালমোহন | শিরোনাম | সর্বশেষ » লালমোহনের গাছে গাছে শোভা পাচ্ছে কৃষ্ণচূড়া ফুল।। লালমোহন বিডিনিউজ
প্রথম পাতা » জেলার খবর | লালমোহন | শিরোনাম | সর্বশেষ » লালমোহনের গাছে গাছে শোভা পাচ্ছে কৃষ্ণচূড়া ফুল।। লালমোহন বিডিনিউজ
৯৮ বার পঠিত
রবিবার, ৫ মে ২০২৪
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

লালমোহনের গাছে গাছে শোভা পাচ্ছে কৃষ্ণচূড়া ফুল।। লালমোহন বিডিনিউজ

---লালমোহন বিডিনিউজ :   গ্রীষ্মের রুক্ষতা ছাড়িয়ে কৃষ্ণচূড়া ফুল নিজের সৌন্দর্য তুলে ধরছে। গাছের ডালপালা জুড়ে শুধুই কৃষ্ণচূড়া ফুলের সমারোহ।

এই ফুলের অপরুপ দৃশ্য যে কারও চোখে ও মনে এনে দিতে পারে শিল্পের দ্যোতনা।

ভোলার জেলার লালমোহন উপজেলার বিভিন্ন  পথে-প্রান্তরে ও স্থানীয়দের বসত বাড়ির আঙ্গিণায় শোভা পাচ্ছে এসব রক্তলাল ফুল সমৃদ্ধ অসংখ্য কৃষ্ণচূড়া গাছ। এ যেন এক অপরুপ মনমুগ্ধকর ভালবাসার অনুভুতির ছোঁয়া। আর এসব কৃষ্ণচূড়া ফুলের নিজস্ব সৌন্দর্য উপভোগ করছেন ফুলপ্রিয় পথিক। প্রকৃতিতে ছড়িয়ে পড়েছে কৃষ্ণচূড়ার জৌলুস।

সরেজমিনে বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে দেখা গেছে, কৃষ্ণচূড়ার গাছে থোকায় থোকায় ফুল ফুঁটেছে। সবুজের বুকে শুধুই লালের রাজত্ব। দূর থেকে মনে হয় ময়ূর তার রাঙা পেখম মেলে ধরেছে প্রকৃতির মাঝে। লক্ষ্য করা গেছে, লালমোহন সজিব ওয়াজেদ জয় ডিজিটাল পার্ক মাঠের পশ্চিম পাসসহ বিভিন্ন বসতবাড়ির পাশে কৃষ্ণচূড়া ফুলের সমারোহ। কৃষ্ণচূড়া ফুলে ঠাসা গাছের ডালগুলো নিয়ে নুয়ে পড়েছে।

কৃষ্ণচূড়া বাঙালির কাছে অতিপরিচিত একটি ফুল। বাঙালির কবিতা, সাহিত্য, গান ও নানা উপমায় এর রূপের মোহনীয় বর্ণনা বিভিন্নভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। মোহনীয় রূপে প্রকৃতির শোভা বর্ধনকারী এ বৃক্ষ এখনো গ্রামবাংলার পাশাপাশি শহরের বিভিন্ন স্থানে দেখা যায়। প্রকৃতিতে গ্রীষ্মের ছোঁয়া পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই কৃষ্ণচূড়া তার রক্তিম আভা ছড়ানোর মাধ্যমে জানান দেয়-সে এখনও টিকে আছে প্রকৃতিকে সাজাবে বলে।

কৃষ্ণচূড়ার আদি নিবাস পূর্ব আফ্রিকার মাদাগাস্কার। বিদেশ থেকে আমদানিকৃত এ বৃক্ষ যেন এখন বাঙালির ঐতিহ্যের একটা অংশ হয়ে গেছে সবার অলক্ষে। এদেশে এসে পরিচিত হয়েছে নতুন নামে। অনেকেই মনে করেন, শ্রীকৃষ্ণের নাম থেকে এ গাছ ও ফুলের নাম হয়েছে কৃষ্ণচূড়া। এর সবচেয়ে বড় খ্যাতি হচ্ছে মোহনীয় রক্তিম আভা। সবুজের বুক চিরে বের হয়ে আসা লাল ফুল এতটাই মোহনীয় যে, পথিচারীরাও থমকে দাঁড়াতে বাধ্য হন।

প্রকৃতির শোভা বর্ধনকারী এ বৃক্ষের উচ্চতা তেমন একটা বেশি হয় না। সর্বোচ্চ ১২ মিটার পর্যন্ত উপরে উঠলেও তার শাখা-প্রশাখা বিশাল এলাকাজুড়ে বিস্তৃত থাকে। কৃষ্ণচূড়া পুরো গ্রীষ্ম ও বর্ষায় প্রকৃতিকে মাতিয়ে রাখে। বিভিন্ন দেশে এই ফুল বিভিন্ন সময়ে ফুটলেও বাংলাদেশে ফুটে এপ্রিল থেকে জুন পর্যন্ত। এই পুরো সময়টাতেই কৃষ্ণচূড়া প্রকৃতিকে মাতিয়ে রাখে উজ্জ্বল লাল আভায়।

তপ্তরাজ্যে এমন উজ্জ্বল লাল রং সত্যিই দুর্লভ বলেই হয়তো সবাই মেতে ওঠে কৃষ্ণচূড়ার বন্দনায়। অন্যান্য সময়ে এ বৃক্ষের উপস্থিতি খুব একটা চোখে পড়ে না। অনেকটা আড়ালেই থেকে যায় তখন। এপ্রিলে গ্রীষ্মের শুরুর সঙ্গে সঙ্গেই সবুজ পাতার মাঝে বেরিয়ে আসতে থাকে লাল রঙের কৃষ্ণচূড়া ফুল। মানুষের দৃষ্টিগোচর হতে থাকে তার সৌন্দর্য। তখন আর আলাদা করে তার খোঁজ নেওয়ার দরকার হয় না। দূর থেকে দেখে মনে হয়-সবুজের বুকে হয়তো আগুন লেগেছে।

স্থানীয়রা জানান, এই কৃষ্ণচূড়া ফুল লাল ও হলুদ রঙয়ের হয়ে থাকে। আমরা না জেনে একে কৃষ্ণচূড়া বলে থাকি। লাল রঙয়ের ফুলকে কৃষ্ণচূড়া ও হলুদ রঙয়ের ফুলকে রাধাচূড়া বলা হয়। তবে হলুদ রঙে রাধাচূড়া এখন তেমন দেখা যায় না বলেই চলে। আমাদের দেশে এপ্রিল মে মাসে এই ফুল ফোটে। বছরের অনান্য সময় এই ফুল বা গাছ সচরাচর চোখে না পড়লেও এপ্রিল মে মাসে যখনি গাছে নতুন পাতা বা ফুল ফোটা শুরু করে তখনি যেন পথচারির নজর কাড়ে মনোমুগ্ধকর এই কৃষ্ণচূড়া।

মমতা , মায়া, ইকরা, রুমা নামের তরুণীরা জানান, এই সময় গ্রাম অঞ্চলে মাঝে মাঝে শুধু চোখে পড়ছে কৃষ্ণচূড়া ফুলের লাল আভা। প্রকৃতি যেন ফিরে পেয়েছে নতুন রূপ।

লালমোহন সরকারি শাহবাজপুর কলেজের মো. রাকিব নামের এক শিক্ষার্থী জানান, কৃষ্ণচূড়া অবশ্যই প্রকৃতির শোভাবর্ধনকারী বৃক্ষ। তবে এর অনেক ভেষজ গুণ রয়েছে। যা আমাদের অনেকেরই অজানা। এছাড়া গ্রীষ্মের খরতাপে ছায়াদান করে কৃষ্ণচূড়া বৃক্ষ।



এ পাতার আরও খবর

ভোলায় সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের লক্ষে মাঠে নেমেছে কোস্টগার্ড।।লালমোহন বিডিনিউজ ভোলায় সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের লক্ষে মাঠে নেমেছে কোস্টগার্ড।।লালমোহন বিডিনিউজ
মনপুরায় উপজেলা নির্বাচনে তিন পদে ৮ প্রার্থীকে প্রতীক বরাদ্দ।।লালমোহন বিডিনিউজ মনপুরায় উপজেলা নির্বাচনে তিন পদে ৮ প্রার্থীকে প্রতীক বরাদ্দ।।লালমোহন বিডিনিউজ
ভোলার তিন উপজেলায় ভোটের সরঞ্জাম যাচ্ছে কেন্দ্রগুলোতে।।লালমোহন বিডিনিউজ ভোলার তিন উপজেলায় ভোটের সরঞ্জাম যাচ্ছে কেন্দ্রগুলোতে।।লালমোহন বিডিনিউজ
লালমোহনে দুদকের উদ্যোগে ২য় পর্বের বিতর্ক প্রতিযোগিতা সম্পন্ন।।লালমোহন বিডিনিউজ লালমোহনে দুদকের উদ্যোগে ২য় পর্বের বিতর্ক প্রতিযোগিতা সম্পন্ন।।লালমোহন বিডিনিউজ
লালমোহনে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে হামলা, আহত-২ লালমোহনে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে হামলা, আহত-২
লালমোহনে দোয়াত কলম সমর্থকদের ওপর শালিক সমর্থকদের হামলার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন লালমোহনে দোয়াত কলম সমর্থকদের ওপর শালিক সমর্থকদের হামলার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন
শেখ হাসিনা রাষ্ট্র ক্ষমতায় বলেই দেশের মানুষ স্বাধীনভাবে নিজ নিজ ধর্ম পালন করছে -এমপি শাওন।। লালমোহন বিডিনিউজ শেখ হাসিনা রাষ্ট্র ক্ষমতায় বলেই দেশের মানুষ স্বাধীনভাবে নিজ নিজ ধর্ম পালন করছে -এমপি শাওন।। লালমোহন বিডিনিউজ
লালমোহনে বাস-অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত-৫।।লালমোহন বিডিনিউজ লালমোহনে বাস-অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত-৫।।লালমোহন বিডিনিউজ
লালমোহন ধলীগৌরনগর ইউপি চেয়ারম্যান পদে প্রতীক পেয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় লালমোহন ধলীগৌরনগর ইউপি চেয়ারম্যান পদে প্রতীক পেয়ে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়
লালমোহনে ভূমিষ্টের সময় নবজাতকের মৃত্যু, হত্যার অভিযোগ দাদার।।লালমোহন বিডিনিউজ লালমোহনে ভূমিষ্টের সময় নবজাতকের মৃত্যু, হত্যার অভিযোগ দাদার।।লালমোহন বিডিনিউজ

আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)